ঢাকাThursday , 22 December 2022
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কৃষি বার্তা
  6. খেলাধুলা
  7. খোলা কলাম
  8. গনমাধ্যাম
  9. চাকরি
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দৈনন্দিন আইন
  13. ধর্ম
  14. পার্বত্য চট্টগ্রাম
  15. প্রবাসের খবর
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গভীর সমুদ্রে পাঁচ ঘণ্টা আটকে ছিলেন মাহফুজ-বুবলী

নিউজ ডেস্ক
December 22, 2022 7:40 pm
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক 

ঢালিউড অভিনেত্রী শবনম বুবলী ‘প্রহেলিকা’ নামের একটি ছবিতে অভিনয় করছেন। এতে তার বিপরীতে আছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা মাহফুজ আহমেদ। এ ছবির শুটিং করতে গিয়ে গতকাল মঙ্গলবার ভয়াবহ বিপদের সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাদের। মাহফুজ-বুবলীসহ শুটিং ইউনিটের বাকি সদস্যরা টানা পাঁচ ঘণ্টা আটকে ছিলেন গভীর সমুদ্রে। সামাজিক মাধ্যমে এ কথা জানিয়েছেন ছবিটির নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী।

মাঝ দরিয়ায় আটকে থাকা অবস্থায় ঘটনাটি নিজের ফেসবুকে জানান চয়নিকা। তিনি লেখেন, “মধ্যসাগরে আমরা আটকে আছি টানা পাঁচ ঘণ্টা। রাত ৯টা থেকে ২টা ২০ মিনিট পর্যন্ত আমরা ‘প্রহেলিকা’ টিম কর্ণফুলী ক্রুজ লাইনের এমভি বে ওয়ানে আছি মাঝসমুদ্রে। দূর থেকে দেখেছি, ভাটার কারণে আমাদের শিফট করে নিয়ে যাওয়ার জাহাজটার কী অবস্থা। কী যে যাচ্ছে সময়টা। সবাই ওপরওয়ালাকে ডাকছে। ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ হোসেন, ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ শামসুজ্জামান ও শাহাদাত সোহেল ভাইয়ের পারদর্শিতার কথা বলতেই হয়। কিন্তু আমাদের কাছে পুরোটাই অসম্ভব মিরাকল ছিল।”

মধ্যসাগরে আটকে থাকার মুহূর্তটা ভয়ংকর ছিল উল্লেখ করে সংবাদমাধ্যমকে মাহফুজ বলেন, ‘মধ্যসমুদ্রে আমরা আটকা পড়ব, ভাবতেও পারিনি। যে পরিস্থিতির মধ্যে আমরা পড়েছি, এমনটা নাকি কখনো হয় না। বারবার ঘোষণা দেওয়া হচ্ছিল, অস্বাভাবিক পরিস্থিতি আমরা ফেস করছি। এমভি বে ওয়ান থেকে যে জাহাজ আমাদের কক্সবাজার নিয়ে যাবে, অস্বাভাবিক পরিস্থিতির কারণে সেটিও কাছে আসতে পারছিল না। সব মিলিয়ে ভয়ংকর একটা সময় গেছে।’

কয়েকদিন ধরে সেন্ট মার্টিন ও ছেঁড়া দ্বীপের বিভিন্ন লোকেশনে ‘প্রহেলিকা’ সিনেমার গানের দৃশ্যধারণের কাজ চলছিল। শুটিং শেষে গতকাল মঙ্গলবার একটি বিলাসবহুল জাহাজে করে মাহফুজ, বুবলী, চয়নিকাসহ পুরো শুটিং ইউনিট কক্সবাজার ফিরছিল। ফেরার পথে টানা পাঁচ ঘণ্টা সাগরে আটকে থাকতে হয় তাদের। বেলা আড়াইটায় সেন্ট মার্টিন থেকে রওনা দিয়েছিল জাহাজটি। রাত দশটায় পৌঁছানোর কথা থাকলেও পৌঁছায় সকাল দশটায়।

জানা গেছে, কারিগরি ত্রুটির কারণে তিন দিন ধরে কর্ণফুলী এক্সপ্রেস জাহাজটি কক্সবাজার-সেন্ট মার্টিন-কক্সবাজার পথে যাত্রীসেবা বন্ধ রেখেছে। এই সময়টা এমভি বে ওয়ান জাহাজ সেন্ট মার্টিন থেকে কক্সবাজার পথের যাত্রীদের আনার কাজটিতে সহযোগিতা করেছে। কিন্তু এমভি বে ওয়ান কক্সবাজার পর্যন্ত আসে না। তাই যাত্রীদের গভীর সমুদ্রে এমভি বে ওয়ান থেকে বারো আউলিয়া জাহাজ ধরে আসতে হয় কক্সবাজার।

মাহফুজ-বুবলীরাও এই পদ্ধতিতে আসছিলেন। কিন্তু বার আউলিয়া জাহাজের যাত্রীর ধারণক্ষমতা ৬০০। অন্যদিকে এমভি বে ওয়ানে গতকাল যাত্রীসংখ্যা হাজারের বেশি ছিল। তাই দুই ধাপে যাত্রী পার করেছে জাহাজটি। এ কারণেই পাঁচ ঘণ্টা মধ্যসাগরে আটকে থাকতে হয়েছিল মাহফুজ-বুবলীদের।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।