দৈনিক চলনবিলের কথা
ঢাকাSunday , 10 July 2022
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. অপহরণ
  4. অর্থনীতি
  5. আইন-আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আলোচনা সভা
  8. ই-পেপার
  9. এক্সক্লুসিভ
  10. কুষি
  11. ক্রিকেট
  12. খুলনা
  13. খেলাধুলা
  14. গণমাধ্যম
  15. গাছ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জমজমাট বেচাকেনায় শেষ হলো ভাঙ্গুড়ার পশুর হাট

chk24 a3
July 10, 2022 12:40 am
Link Copied!

 

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি

 

 

আর মাত্র একটি রাত পরেই পবিত্র ঈদুল আযহা। সেই জন্য শেষ মুহূর্তের কেনাবেচায় মুখরিত ছিল পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার একমাত্র শরৎনগর পশুর হাট। উপজেলার ঐতিহ্যবাহী এ পশুর হাটে ক্রেতাদের যেন ঢল নেমেছিল। সারাদিনে সময় যতই এগিয়ে আসছিল এ অঞ্চলের সবচেয়ে বড় এ পশুর হাটে ততই বাড়ছিল গরু-ছাগলের বেচা-কেনা।

হাঁটে এবার ভারতীয় গরু না থাকায় ভালো দাম পেয়ে খুশি স্থানীয় বিক্রেতা ও খামারিরা। দাম সূলভ মূল্যের হওয়ায় পছন্দমতো গরু কিনতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা। তবে গত হাঁটের তুলনায় ঈদের শেষ হাঁটে বড় গরুর চাহিদা ছিলো অনেক। হাঁটে বিভিন্ন স্থান থেকে খামারি, ব্যাপারি ও গৃহস্থরা ভিড় করেন গরু-ছাগল কেনা-বেচার জন্য।

 

 

শনিবার (৯ জুলাই) সরেজমিন সারাদিন হাটে গিয়ে দেখা যায়, কোরবানি দিতে ইচ্ছুক ক্রেতারা হাটের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে ঘুরে-ফিরছেন সাধ্যের মধ্যে তাদের পছন্দের গরু কেনার জন্য। শেষ হাঁট হওয়ায় কারোর যে অপেক্ষা করার সুযোগ নেই। তাই ক্রেতারা বাড়ি ফিরেছেন পছন্দমতো কোরবানির গরু কিনে।

 

 

জেলার ঐতিহ্যবাহী শরৎনগর হাঁটের সার্বিক নিরাপত্তায় ভাঙ্গুড়া থানা পুলিশের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল চোখে পড়ার মতো। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিরাপত্তায় সন্তুষ্ট প্রকাশ করেন হাঁটে আগত ক্রেতা-বিক্রেতারা। সোনালী ব্যাংক লিমিটেড ভাঙ্গুড়া বাজার শাখার পক্ষ থেকে জাল শনাক্তকরণ মেশিন দেওয়া হয়েছিল। যেখান থেকে ক্রেতা-বিক্রেতা সহজেই তাদের টাকা শনাক্ত করে নিতে পারছেন।

 

 

ভাঙ্গুড়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম হাসনাইন রাসেলের নির্দেশনায় বিভিন্ন পয়েন্টে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়ে হাটে আসা ক্রেতা-বিক্রেতাকে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ ও স্বাস্থবিধি মেনে চলতে অনুরোধ করেছেন।

 

ভাঙ্গুড়া পৌরসভার চৌবাড়ীয়া মাষ্টার পাড়া মহল্লা থেকে হাঁটে আসা গরু ক্রেতা আবুল কাশেম সরকার বলেন, হাঁটে পছন্দের গরুর অভাব ছিলো না। সাধ্যের মধ্যে ভালো ষাঁড় গরু কিনতে পেরেছেন বলেও জানান তিনি।

 

শরৎনগর হাটের ইজারাদার ফজলে রাব্বী শিলু  দৈনিক চলনবিলের কথা কে জানান, হাটে ৭০-৮০ হাজার থেকে ৫ লাখ টাকা দামের অনেক বড় বড় গরু আমদানি হয়। ক্রেতাদের পছন্দ ৯০ থেকে এক লাখ ৫০০০০ হাজার টাকা দামের গরু। তবে বন্যার কারণে এবার বাইরের ব্যাপারি না থাকলেও স্থানীয়ভাবে ছাগলেরও ব্যাপক চাহিদা ছিলো। গরু বিক্রেতা ও খামারিরা জানান, এবারের শেষ হাটে বেচাকেনা বেশ ভালো হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
x