Dhaka , Tuesday, 27 February 2024
www.dainikchalonbilerkotha.com

নড়াইলে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নিহত ১ জন,খবর শুনে অপরপক্ষের বৃদ্ধের মৃত্যু

শেখ নয়ন,স্টাফ রিপোর্টারঃ

নড়াইলের লোহাগড়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হাতুড়ি ও লাঠির আঘাতে এস এম বরকত আলী ওরফে সাহেব (৬৫) নিহত হয়েছেন। এদিকে প্রতিপক্ষের নিহতের খবর শুনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কেরামত মোল্লা (৭২) মারা গেছে।

মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) বিকালের দিকে লোহাগড়া উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের পাংখারচর এলাকার কাজিপাড়া চৌরাস্তায় এ ঘটনা ঘটে।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মো. নাসির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহত এস এম বরকত আলী ওরফে সাহেব দক্ষিণ পাংখারচর গ্রামের কাজী পাড়ার মৃত আলফু শেখের ছেলে। পেশায় তিনি একজন দলিল লেখক।

এছাড়া হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া বৃদ্ধ হলেন একই গ্রামের মৃত রউফ মোল্লার ছেলে কেরামত মোল্যা।

পুলিশ এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, ইতনা ইউনিয়নের দক্ষিণ পাঙ্খারচর গ্রামের কাজীপাড়ার এস এম বরকত আলীর সঙ্গে একই গ্রামের কেরামত মোল্লার জমি নিয়ে দ্বন্দ্ব সংঘাত চলে আসছিল। এ নিয়ে মঙ্গলবার বিরোধপূর্ণ জমির সমাধানের জন্য উভয় পক্ষ পাংখারচর এলাকার কাজীপাড়া চৌরাস্তা বাজারে সালিশে বসেন। এসময় জমির কাগজপত্র দেখার এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বাক বিতণ্ডার এক পর্যায়ে কেরামতের ছেলে নেপাল ও রকির নেতৃত্বে রুনু, হামীম,আমীনসহ ১০/১২ জন হাতুড়ি ও লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে এস এম বরকত আলী ওরফে সাহেবকে হত্যা করে।

এদিকে হত্যার খবর শুনে প্রতিপক্ষের প্রধান বৃদ্ধ কেরামত মোল্লা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

এ বিষয়ে লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মো. নাসির উদ্দিন
বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। নিহত দু’জনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

নড়াইলে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নিহত ১ জন,খবর শুনে অপরপক্ষের বৃদ্ধের মৃত্যু

আপডেটের সময় 11:58 pm, Tuesday, 29 August 2023

শেখ নয়ন,স্টাফ রিপোর্টারঃ

নড়াইলের লোহাগড়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হাতুড়ি ও লাঠির আঘাতে এস এম বরকত আলী ওরফে সাহেব (৬৫) নিহত হয়েছেন। এদিকে প্রতিপক্ষের নিহতের খবর শুনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কেরামত মোল্লা (৭২) মারা গেছে।

মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) বিকালের দিকে লোহাগড়া উপজেলার ইতনা ইউনিয়নের পাংখারচর এলাকার কাজিপাড়া চৌরাস্তায় এ ঘটনা ঘটে।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মো. নাসির উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহত এস এম বরকত আলী ওরফে সাহেব দক্ষিণ পাংখারচর গ্রামের কাজী পাড়ার মৃত আলফু শেখের ছেলে। পেশায় তিনি একজন দলিল লেখক।

এছাড়া হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া বৃদ্ধ হলেন একই গ্রামের মৃত রউফ মোল্লার ছেলে কেরামত মোল্যা।

পুলিশ এলাকাবাসী ও নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, ইতনা ইউনিয়নের দক্ষিণ পাঙ্খারচর গ্রামের কাজীপাড়ার এস এম বরকত আলীর সঙ্গে একই গ্রামের কেরামত মোল্লার জমি নিয়ে দ্বন্দ্ব সংঘাত চলে আসছিল। এ নিয়ে মঙ্গলবার বিরোধপূর্ণ জমির সমাধানের জন্য উভয় পক্ষ পাংখারচর এলাকার কাজীপাড়া চৌরাস্তা বাজারে সালিশে বসেন। এসময় জমির কাগজপত্র দেখার এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে বাক বিতণ্ডার এক পর্যায়ে কেরামতের ছেলে নেপাল ও রকির নেতৃত্বে রুনু, হামীম,আমীনসহ ১০/১২ জন হাতুড়ি ও লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে এস এম বরকত আলী ওরফে সাহেবকে হত্যা করে।

এদিকে হত্যার খবর শুনে প্রতিপক্ষের প্রধান বৃদ্ধ কেরামত মোল্লা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

এ বিষয়ে লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মো. নাসির উদ্দিন
বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। নিহত দু’জনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে।