Dhaka , Sunday, 14 April 2024
www.dainikchalonbilerkotha.com

পর্ব:-৪, ট্রেন ভ্রমণ, হালিমা খাতুন সুলতানা

ট্রেন ভ্রমণ পর্ব:- ৪
হালিমা খাতুন সুলতানা


উনি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করছেন ফিশারীজে । কিন্তু আমাদের কোচিং সেন্টারে গণিত পড়ান । মাঝে মাঝে উনি গণিত পড়াতে গিয়ে চশমা পরিস্কার না করেই বোডে লেখা শুরু করেন । আর এর জন্য উনি ১ এর জায়গায় ১১ এরকম ভুল গুলি করেন । আর কি অদ্ভুত বিষয় এই ভুল গুলি শুধু আমার নজরেই পড়ে ।আর এতেই আমি উনার দুই চোখের বিষ। তবে উনার চোখ গুলি অনেক সুন্দর । চশমার ফাঁকে ফাঁকে চোখের কালো মণি গুলি তে যাদু আছে । ঐ চোখ পৃথিবীর সকল মেয়ের মন কেড়ে নিতে পারে । এছাড়া শিশির স্যার এর সবচেয়ে বড় গুণ হচ্ছে গত ৬ মাসে আমি কখন উনাকে একটা মিথ্যে কথা ও বলতে শুনিনি । নিয়মিত নামাজ পড়ে ,রোজা রাখেন । কখন কোন মেয়ের দিকে তাঁকাতে দেখিনি । বর্তমান যুগে এমন ছেলে পাওয়া অনেক কঠিন । শিশির স্যার এর স্ত্রী যে মেয়ে হবে সে তো সোনায় সোহাগা হবে । ধ্যাত মনটাই খারাপ হয়ে গেলও । যাকে কখন পাবো না তাঁকে নিয়ে এত কি ভাবার আছে । ভাবতে ভাবতে শেষে শিশির স্যার এর পাবনা জেলার হেমায়েতপুরে ভর্তি হতে হবে । স্যার এর বাড়ি পাবনা সদর । মাঝে মাঝে তো মনে হয় আমার দুষ্টু মনটাকে হেমায়েতপুর ভর্তি করে দেই তাহলে আর শিশির শিশির করবে না ।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

Popular Post

পর্ব:-৪, ট্রেন ভ্রমণ, হালিমা খাতুন সুলতানা

আপডেটের সময় 03:30 pm, Wednesday, 21 December 2022

ট্রেন ভ্রমণ পর্ব:- ৪
হালিমা খাতুন সুলতানা


উনি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা করছেন ফিশারীজে । কিন্তু আমাদের কোচিং সেন্টারে গণিত পড়ান । মাঝে মাঝে উনি গণিত পড়াতে গিয়ে চশমা পরিস্কার না করেই বোডে লেখা শুরু করেন । আর এর জন্য উনি ১ এর জায়গায় ১১ এরকম ভুল গুলি করেন । আর কি অদ্ভুত বিষয় এই ভুল গুলি শুধু আমার নজরেই পড়ে ।আর এতেই আমি উনার দুই চোখের বিষ। তবে উনার চোখ গুলি অনেক সুন্দর । চশমার ফাঁকে ফাঁকে চোখের কালো মণি গুলি তে যাদু আছে । ঐ চোখ পৃথিবীর সকল মেয়ের মন কেড়ে নিতে পারে । এছাড়া শিশির স্যার এর সবচেয়ে বড় গুণ হচ্ছে গত ৬ মাসে আমি কখন উনাকে একটা মিথ্যে কথা ও বলতে শুনিনি । নিয়মিত নামাজ পড়ে ,রোজা রাখেন । কখন কোন মেয়ের দিকে তাঁকাতে দেখিনি । বর্তমান যুগে এমন ছেলে পাওয়া অনেক কঠিন । শিশির স্যার এর স্ত্রী যে মেয়ে হবে সে তো সোনায় সোহাগা হবে । ধ্যাত মনটাই খারাপ হয়ে গেলও । যাকে কখন পাবো না তাঁকে নিয়ে এত কি ভাবার আছে । ভাবতে ভাবতে শেষে শিশির স্যার এর পাবনা জেলার হেমায়েতপুরে ভর্তি হতে হবে । স্যার এর বাড়ি পাবনা সদর । মাঝে মাঝে তো মনে হয় আমার দুষ্টু মনটাকে হেমায়েতপুর ভর্তি করে দেই তাহলে আর শিশির শিশির করবে না ।