Dhaka , Sunday, 21 April 2024
www.dainikchalonbilerkotha.com

ভাঙ্গুড়ায় পেঁয়াজের দাম বাড়ায় বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ

 

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি

 

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় হঠাৎ বেড়ে গেছে পেঁয়াজের দাম। দুই দিনে খুচরা পর্যায়ে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম ২০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে গেছে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সেই দাম বেড়ে হয়েছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা। এতে নিম্ন আয়ের মানুষেরা বিপাকে পড়েছেন।

উপজেলার খুচরা ও পাইকারি বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত শুক্রবার খুচরা পর্যায়ে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছিল সর্বোচ্চ ৮০ থেকে ৯০ টাকা। আজ সেই দাম বেড়ে হয়েছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা। আর পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১০৫ থেকে ১০৭ টাকায়।

সাহেদুল ইসলাম নামে এক ক্রেতা বলেন, পেঁয়াজের দামের কোনো ঠিকঠিকানা নেই। সকালে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১০০ টাকা বিক্রি হলেও দুপুরে দাম হাঁকাচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা।

উপজেলার ভাঙ্গুড়া বাজারের খুচরা পেঁয়াজ বিক্রেতা আবু তালেব বলেন, ‘আমরা খুচরা বিক্রেতারা খুব অল্প টাকা লাভে পেঁয়াজ বিক্রি করি। শুনতেছি দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ কমে আসতেছে। তাই দাম বাড়ছে।’

ভাঙ্গুড়া উপজেলার পাইকারি পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা জানান, আমদানি ও সরবরাহ সংকটে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ কমে গেছে। আমরা কেজি প্রতি চার-পাঁচ টাকা লাভ রেখে বিক্রি করে থাকি। আবার কম দামে কিনতে পারলে কম দামেই বিক্রি করে থাকি।

এ বিষয়ে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর পাবনার সহকারী পরিচালক মাহমুদ হাসান রনি জানান, ‘‌নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমাদের সংস্থার পক্ষ থেকে নিয়মিতভাবে জেলার বিভিন্ন হাট বাজারে অভিযান চালানো হবে। কেউ যদি কৃত্রিম সংকটের মাধ্যমে অহেতুক কোনো পণ্যের দাম বাড়ায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

ভাঙ্গুড়ায় পেঁয়াজের দাম বাড়ায় বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ

আপডেটের সময় 06:23 pm, Sunday, 25 February 2024

 

ভাঙ্গুড়া (পাবনা) প্রতিনিধি

 

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় হঠাৎ বেড়ে গেছে পেঁয়াজের দাম। দুই দিনে খুচরা পর্যায়ে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম ২০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে গেছে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সেই দাম বেড়ে হয়েছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা। এতে নিম্ন আয়ের মানুষেরা বিপাকে পড়েছেন।

উপজেলার খুচরা ও পাইকারি বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত শুক্রবার খুচরা পর্যায়ে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছিল সর্বোচ্চ ৮০ থেকে ৯০ টাকা। আজ সেই দাম বেড়ে হয়েছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা। আর পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১০৫ থেকে ১০৭ টাকায়।

সাহেদুল ইসলাম নামে এক ক্রেতা বলেন, পেঁয়াজের দামের কোনো ঠিকঠিকানা নেই। সকালে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১০০ টাকা বিক্রি হলেও দুপুরে দাম হাঁকাচ্ছে ১১০ থেকে ১২০ টাকা।

উপজেলার ভাঙ্গুড়া বাজারের খুচরা পেঁয়াজ বিক্রেতা আবু তালেব বলেন, ‘আমরা খুচরা বিক্রেতারা খুব অল্প টাকা লাভে পেঁয়াজ বিক্রি করি। শুনতেছি দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ কমে আসতেছে। তাই দাম বাড়ছে।’

ভাঙ্গুড়া উপজেলার পাইকারি পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা জানান, আমদানি ও সরবরাহ সংকটে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ কমে গেছে। আমরা কেজি প্রতি চার-পাঁচ টাকা লাভ রেখে বিক্রি করে থাকি। আবার কম দামে কিনতে পারলে কম দামেই বিক্রি করে থাকি।

এ বিষয়ে জাতীয় ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর পাবনার সহকারী পরিচালক মাহমুদ হাসান রনি জানান, ‘‌নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমাদের সংস্থার পক্ষ থেকে নিয়মিতভাবে জেলার বিভিন্ন হাট বাজারে অভিযান চালানো হবে। কেউ যদি কৃত্রিম সংকটের মাধ্যমে অহেতুক কোনো পণ্যের দাম বাড়ায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।