Dhaka , Monday, 20 May 2024
www.dainikchalonbilerkotha.com

ভারতের উত্তরাখণ্ডের কেদারনাথে তুষারধ্বস, বন্যার আশঙ্কা দেখা দিতে পারে আগাম সতর্কবার্তা।।

ভারত থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।।

সনাতন ধর্মের অনুসারীদের পবিত্র তীর্থ স্থান কেদারনাথ ও বদ্রীনাথ। সেই কেদারনাথে তুষারধ্বস নেমেছে। গোটা এলাকার মানুষজন কে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যায় ভারতের উত্তরাখণ্ডের প্রশাসন। এদিন কেদারনাথে তুষারধ্বস নেমেছে মন্দিরের পিছন থেকে। বড় বড় হিমবাহ গলে নেমে এসেছে কেদারনাথে। কারণ কেদারনাথ মন্দির থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে হিমালয় পর্বতমালার চোরাবারি হিমবাহ নেমে এসেছে। এর আগে ২০১৩সালে, এবং ২০১৯সালে, প্রবল হিমবাহ নামার পর বন্যা দেখা যায়। তখন বন্যার জলের তোড়ে ভেসে যায় হাজার হাজার মানুষের ঘরবাড়ি। ক্ষতিগ্রস্ত হয় লক্ষ লক্ষ মানুষ। কারণ মন্দাকিনী নদীর জলধারা বেয়ে ভাসিয়ে নিয়ে যায় কেদারনাথ মন্দির বরাবর এলাকা। সেই ঘটনার পুনরায় ফিরে না আসে আগে থেকেই আগাম সতর্কবার্তা গ্রহণ করেছে প্রশাসন। তৈরি রাখা হয়েছে প্রকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যদের।মন্দিরের প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে দর্শনের জন্য আসা মানুষদের।।

ট্যাগ:

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

ভারতের উত্তরাখণ্ডের কেদারনাথে তুষারধ্বস, বন্যার আশঙ্কা দেখা দিতে পারে আগাম সতর্কবার্তা।।

আপডেটের সময় 09:39 pm, Saturday, 1 October 2022

ভারত থেকে নিউজ দাতা মনোয়ার ইমাম।।

সনাতন ধর্মের অনুসারীদের পবিত্র তীর্থ স্থান কেদারনাথ ও বদ্রীনাথ। সেই কেদারনাথে তুষারধ্বস নেমেছে। গোটা এলাকার মানুষজন কে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যায় ভারতের উত্তরাখণ্ডের প্রশাসন। এদিন কেদারনাথে তুষারধ্বস নেমেছে মন্দিরের পিছন থেকে। বড় বড় হিমবাহ গলে নেমে এসেছে কেদারনাথে। কারণ কেদারনাথ মন্দির থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে হিমালয় পর্বতমালার চোরাবারি হিমবাহ নেমে এসেছে। এর আগে ২০১৩সালে, এবং ২০১৯সালে, প্রবল হিমবাহ নামার পর বন্যা দেখা যায়। তখন বন্যার জলের তোড়ে ভেসে যায় হাজার হাজার মানুষের ঘরবাড়ি। ক্ষতিগ্রস্ত হয় লক্ষ লক্ষ মানুষ। কারণ মন্দাকিনী নদীর জলধারা বেয়ে ভাসিয়ে নিয়ে যায় কেদারনাথ মন্দির বরাবর এলাকা। সেই ঘটনার পুনরায় ফিরে না আসে আগে থেকেই আগাম সতর্কবার্তা গ্রহণ করেছে প্রশাসন। তৈরি রাখা হয়েছে প্রকৃতিক বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যদের।মন্দিরের প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে দর্শনের জন্য আসা মানুষদের।।