Dhaka , Sunday, 21 April 2024
www.dainikchalonbilerkotha.com

স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য,কীটনাশক পানে গৃহবধূর আত্মহত্যা

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ায় অভিমানে রেবেকা খাতুন(৪৮)নামের এক গৃহবধূ কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চরভাঙ্গুড়া দিয়ারপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে।গৃহবধূ রেবেকা খাতুন ওই গ্রামের নজরুল ইসলাম প্রামানিকের স্ত্রী। তাঁদের চারটি ছেলে-মেয়ে রয়েছে। ভাঙ্গুড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) আত্মহত্যার ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন।

থানা-পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান,পারিবারিক বিষয় নিয়ে বেশ কয়েক দিন ধরে স্বামীর সঙ্গে গৃহবধূ রেবেকার মনোমালিন্য চলছিল। এ নিয়ে তাঁদের দু’জনের মধ্যে ঝগড়াও হয়।আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে স্বামীর ওপর অভিমান করে শোবার ঘরের মধ্যে কীটনাশক পান করে ছটফট করতে থাকেন রেবেকা। বিষয়টি টের পেয়ে বাড়ির লোকজন রেবেকাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে রেফার করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে উপজেলার রেল গেটের নিকট পৌঁছালে রেবেকা মারা যান।

এ বিষয়ে থানার পুলিশ পরির্দশক(তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান বলেন,’ এঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু(ইউডি)মামলা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কারও কোন অভিযোগ না থাকায় দাফনের জন্য মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।’

 

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য,কীটনাশক পানে গৃহবধূর আত্মহত্যা

আপডেটের সময় 09:23 pm, Thursday, 22 February 2024

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় স্বামীর সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ায় অভিমানে রেবেকা খাতুন(৪৮)নামের এক গৃহবধূ কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করেছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চরভাঙ্গুড়া দিয়ারপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে।গৃহবধূ রেবেকা খাতুন ওই গ্রামের নজরুল ইসলাম প্রামানিকের স্ত্রী। তাঁদের চারটি ছেলে-মেয়ে রয়েছে। ভাঙ্গুড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) আত্মহত্যার ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন।

থানা-পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান,পারিবারিক বিষয় নিয়ে বেশ কয়েক দিন ধরে স্বামীর সঙ্গে গৃহবধূ রেবেকার মনোমালিন্য চলছিল। এ নিয়ে তাঁদের দু’জনের মধ্যে ঝগড়াও হয়।আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে স্বামীর ওপর অভিমান করে শোবার ঘরের মধ্যে কীটনাশক পান করে ছটফট করতে থাকেন রেবেকা। বিষয়টি টের পেয়ে বাড়ির লোকজন রেবেকাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যায়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে রেফার করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে উপজেলার রেল গেটের নিকট পৌঁছালে রেবেকা মারা যান।

এ বিষয়ে থানার পুলিশ পরির্দশক(তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান বলেন,’ এঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু(ইউডি)মামলা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে কারও কোন অভিযোগ না থাকায় দাফনের জন্য মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।’