Logo
শিরোনাম
সুবর্ণচরে মহিলা মেম্বার প্রার্থী বিলকিস সুলতানা প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে পাবনায় সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় জামান ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক সুমনের বিরুদ্ধে মামলা সিংড়ায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে শিক্ষার্থীর মৃত্যু ভাঙ্গুড়ায় বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা ক্যাম্পেইনের উদ্বোধন ভাঙ্গুড়ায় কোভিড-১৯ পরবর্তী প্রাথমিক বিদ্যালয় পুনরায় চালুকরণের লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা ভাঙ্গুড়ায় ওয়াশ ব্লক নির্মাণ কাজের উদ্ধোধন ভক্তদের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন পরীমনি ভাঙ্গুড়ায় বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করোনা কালীন হেল্প সেন্টারের উদ্বোধন হন্তারক ★★ -পিএম. জাহিদ জীবন যেখানে যেমন পদ্মা সেতুর স্প্যানে ফেরির মাস্তুলের ‘ধাক্কার’ খবর, পরির্দশনে যাচ্ছে একটি দল মহান নেতা ★★ফেরদৌসী খানম রীনা আমাদের দেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ খাদ্যমন্ত্রী মেঘ কন্যা চাঁদে ★ কবি হাবিবুর রহমান  চলনবিলে শাপলার সমাহার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে মতবিনিময় সভা ভরা চলনবিল মাছ শূন্য উল্লাপাড়ায় গৃহবধুকে চায়ের স্টল হতে তুলে নিয়ে রাতভর আমবাগানে গণধর্ষন ১০-১১ জনের দলের ডি মারিয়া-এমবাপেতে ভর করে ছয় গোলের রোমাঞ্চে জিতল পিএসজি সিংড়ায় সেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

কুমিল্লাকে ১৮২ রানের লক্ষ্য দিল রংপুর

শুরুতে ঝড় তুলেছিলেন মোহাম্মদ শাহজাদ। তাতে ৮ ওভারেই ৮৬ রান তুলে ফেলেছিল রংপুর রেঞ্জার্স। ফলে বিশাল সংগ্রহের আভাস দিয়েছিল তারা। তবে মাঝপথে নিয়মিত উইকেট হারালে ততটা সম্ভব হয়নি। কিন্তু পুঁজিটা একেবারে মন্দও হয়নি। শাহজাদের বড় ও মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের ছোট ছোট স্কোরে ১৮১ রান সংগ্রহ করেছে রংপুর।

বুধবার চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নেন রংপুর অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী। তার সিদ্ধান্তকে যৌক্তিক প্রমাণ করে দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ ও নাঈম শেখ। দারুণ শুরুর পর দলীয় ৪৯ রানে রানআউটে কাটা পড়েন নাঈম।

তবে রয়ে যান শাহজাদ। কুমিল্লা বোলারদের ওপর রীতিমতো তোপ দাগান তিনি। পথিমধ্যে মাত্র ২১ বলে ফিফটি তুলে নেন এ হার্ডহিটার। এবারের বিপিএলে এটি দ্বিতীয় দ্রুততম ফিফটি। প্রথমটি খুলনা টাইগার্সের রহমানউল্লাহ গুরবাজের। চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে মাত্র ১৮ বলে হাফসেঞ্চুরি করেন তিনি।

অবশ্য ফিফটির পর বেশিক্ষণ শাহজাদ ঝড় চলেনি। সানজামুল ইসলামের শিকার হয়ে ফেরেন তিনি। ফেরার আগে ২৭ বলে ৭ চার ও ৪ ছক্কায় ৬১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন রংপুরের আফগান রিক্রুট। সেই রেশ না কাটতেই রানআউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন আল-আমিন। এতে রানের চাকা স্লো হয়ে যায় তাদের।

পরে মোহাম্মদ নবীকে নিয়ে খেলা ধরার চেষ্টা করেন টম অ্যাবল। তবে রানের গতি একটু বাড়াতে গিয়ে ২৫ বলে ২৫ রান করে সৌম্য সরকারের বলে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি। সঙ্গী হারিয়ে বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি নবী। খানিক বাদে মুজিব-উর রহমানের বলে ২৬ রান করে ফেরত আসেন তিনি।

তাতে চাপে পড়ে রংপুর। সেই চাপ কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেন লুইস গ্রেগরি। তবে অতি আক্রমণাত্মক হয়ে খেলতে গিয়ে আল-আমিনের বলির পাঁঠা হন তিনি। বিদায় নেয়ার আগে ১২ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২১ রানের ক্যামিও খেলেন এ ব্যাটার। পরক্ষণেই মুজিবের বলে প্লেড অন হন জহুরুল ইসলাম।

এতদসত্ত্বেও শুরুটা শুভ হওয়ায় রানের গতি খুব একটা কমেনি রংপুরের। অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে রানআউটে ফিনিশ হন নাদিফ চৌধুরী। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৮১ রান করে তারা। কুমিল্লার হয়ে মুজিব-উর রহমান নেন সর্বোচ্চ ২ উইকেট।

এ ম্যাচে একাদশে দুটি পরিবর্তন এনেছে রংপুর। সুযোগ পেয়েছেন মনিরুল ইসলাম মুগ্ধ ও আল আমিন জুনিয়র। অভিষেক হচ্ছে পেসার মুগ্ধর। তবে অপরিবর্তিত একাদশ নিয়ে মাঠে নেমেছে কুমিল্লা।

বিপিএলের এবারের আসরে এর আগে একবার মুখোমুখি হয় রংপুর- কুমিল্লা। সেই ম্যাচে ১০৫ রানের বিশাল ব্যবধানে রংপুরকে হারায় কুমিল্লা। তাই রংপুরের সামনে এটি প্রতিশোধের ম্যাচ।

কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স একাদশ: ভানুকা রাজাপাকশে, ইয়াসির আলি চৌধুরী, সৌম্য সরকার, ডেভিড মালান, সাব্বির রহমান, দাসুন শানাকা (অধিনায়ক), মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন (উইকেটরক্ষক), আবু হায়দার রনি, সানজামুল ইসলাম, মুজিব-উর-রহমান ও আল -আমিন হোসেন।

রংপুর রেঞ্জার্স একাদশ: মোহাম্মদ শেহজাদ (উইকেটরক্ষক), নাঈম শেখ, টম অ্যাবল, জহুরুল ইসলাম অমি, মোহাম্মদ নবি (অধিনায়ক), লুইস গ্রেগরি, আল -আমিন জুনিয়র, নাদিফ চৌধুরী, আরাফাত সানি, মনিরুল ইসলাম মুগ্ধ ও মোস্তাফিজুর রহমান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Categories

Theme Created By SmartiTHost