Logo
শিরোনাম
দীঘির ছবির ট্রেলার দেখে এমবির টাকা ফেরত চাইছেন দর্শকরা! জামালপুরের মেলান্দহ থানায় এক বিদায়ি সংবর্ধনা অনুষ্টিত। ঠাকুরগাঁওয়ের সড়ক দুর্ঘটনায় বিআরটিএ কর্মকর্তা নিহত এইচ টি ইমাম আর নেই রাণীশংকৈলে মেয়র-কাউন্সিলরদের সম্মানার্থে মহিলা প্রীতি ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত জামালপুর সদরে এক কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার রাণীশংকৈলে জাতীয় বীমা দিবস পালিত সিংড়ায় হাই-কোর্ট থেকে রায় পাওয়ার পরও ভাতা পাচ্ছেনা মুক্তিযোদ্ধারা ভাঙ্গুড়ায় ঘর দেবার কথা বলে  টাকা নিয়ে ঘর না দিয়ে উল্টো মারধর।  কবিতার শিরোনামঃ বসন্ত সমাচার কবিঃ মারিয়া আক্তার রিয়া রাণীশংকৈলে মহান জাতীয় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রাণীশংকৈলে মুক্তা সুপার মার্কেটের উদ্বোধন কবিতার শিরোনাম দেশের ছবি,কবি নুরুল ইসলাম বাবুল বেঙ্গল সিমেন্ট নিবেদিত বাংলার গায়েন’র চ্যাম্পিয়ন পাবনা চাটমোহরের রাসেল। পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শরীফ প্রধান মেয়র নির্বাচিত সিংড়া পৌরসভায় ফেরদৌস পুনরায় নির্বাচিত রাণীশংকৈল পৌর নির্বাচনে নৌকা আ’লীগের ৫ বিদ্রোহী প্রার্থী বহিস্কার ভাঙ্গুড়ায় বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মুমূর্ষ দুই যুবক রুনু ভেরোনিকা কস্তা: বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম ভ্যাকসিন বা টিকা নিলেন যে নার্স এম পি হিসেবে প্রথম টিকা নিলেন চলনবিলের কৃতি সন্তান জুনাইদ আহমেদ পলক

এনআরসি নিয়ে পিছু হটলো মোদি সরকার

ভারতের বিতর্কিত নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) ও নাগরিকত্ব সংশোনী আইন নিয়ে চলমান বিক্ষোভ ও আন্দোলনের ফলে পিছু হটলো মোদি সরকার। এক সরকারি বিজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, দেশজুড়ে এনআরসি করার কোনো ঘোষণা দেয়া হয়নি।

কেন্দ্রের জারি করা তিন পৃষ্ঠার ফ্যাক্টশিটে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার বিস্তারিতভাবে লিখেছে যে, নাগরিকত্ব সংশোধনী একটা পৃথক আইন এবং এনআরসি একটি আলাদ প্রক্রিয়া। সংসদে বিল পাস হওয়ার পর নাগরিকত্ব আইন সারা দেশেই চালু হয়েছে। কিন্ত এনআরসি প্রক্রিয়া নিয়ে এখনও সম্পূর্ণ সিদ্ধান্ত হয়নি। আসাম অ্যাকর্ডের নিয়ম মেনে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে শুধু আসামেই তা জারি হয়েছে বলে ফ্যাক্টশিটে সাফাই দিয়েছে কেন্দ্র।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার তাদের বিজ্ঞাপনে আরও লিখেছে, শুধু ভারতীয় মুসলিম নয়, কোনও ভারতীয় নাগরিকেরই নাগরিকত্ব আইন বা এনআরসি নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই। কোনও বিশেষ একটি ধর্মীয় সম্প্রদায়কে লক্ষ্য করে নয়, এনআরসি যদি হয় তাহলে তা ভারতের সকল ধর্মের মানুষের জন্যই হবে।

এনআরসিতে নাম নথিভুক্ত করা আসলে ভারতের নাগরিক রেজিস্ট্রারে নাম লেখানো এবং সেখানে ভারতীয় নাগরিকত্বের প্রমাণপত্র দেওয়া ভোটার বা আধার কার্ডের মতো পরিচয়পত্র দেওয়ার মতোই বলে ফ্যাক্টশিটে দাবি করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। তবে ফ্যাক্টশিটে কেন্দ্র লিখেছে, নাগরিকত্বের প্রমাণের জন্য নিজের জন্মের সনদপত্র বা বিস্তারিত বিবরণ এবং সেটা না থাকলে বাবা ও মায়ের জন্মের বিস্তারিত বিবরণ দিতে হবে।

বাবা ও মায়ের জন্মের সনদপত্রের প্রয়োজন নেই বলে জানালেও সরকারের দাবি- ভোটার, আধার বা স্কুলের পাস করার সনদপত্রের মতো যে কোনও পরিচয়পত্রও থাকতে পারে।

১৯৭১ সালের আগে পরিবারের নাগরিত্ব প্রমাণের বিষয়টি সম্পূর্ণ আসামের জন্যই নির্দিষ্ট বলে কেন্দ্র জানিয়েছে ওই ফ্যাক্টশিটে।

তবে ভারত সরকারের এই বিজ্ঞাপন ক্ষমতসীল দল বিজেপি সভাপতি ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ঘোষণার সম্পূর্ণ বিপরীত। এর আগে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যে গোটা ভারতে এনআরসি চালু করার ওপর জোর দিয়েছিলেন তিনি। সদ্য সমাপ্ত অধিবেশনে অমিত শাহ বিরোধীদের উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, ‘কোনও সংশয় রাখবেন না, এনআরসি গোটা দেশেই হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Categories

Theme Created By ThemesWala.Com