Logo
শিরোনাম
কবি -পিএম. জাহিদের ধারাবাহিক সিরিজ কবিতা ” নীলকষ্টের পরিক্রমা ২” আমি ছুয়ে যাই শিরোনামে কবি হাবিবুর রহমানের লেখা কবিতা কবি সাজিয়া আফরিনের কবিতা “এইতো জীবন “। কবি পি এম জাহিদের ধারাবাহিক কবিতা “নীলকষ্ঠের পরিক্রমা-০১” নোবেলের ‘মেহেরবান’ আসছে ২৫ রোজার পর কবি মোঃ আমিনুল ইসলাম মিন্টুর সমসাময়িক পরিস্থিতির কবিতা ” সমাজ এখন জিম্মি “। পাবনায়১২ কেজি গাঁজাসহ এসআই ওছিম গ্রেপ্তার। কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানা পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম কুষ্টিয়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে অবরুদ্ধ কৃষক সৈয়দ বেলাল হোসেন পাবেল এর নেতৃত্বে ধান কাটলো পটুয়াখালী জেলা ছাত্র লীগ সাতদিনেই ভেঙ্গে গেলো শ্রাবন্তীর ভালোবাসার সংসার ভোলায় এক মাসে ডায়রিয়া আক্রান্ত ৫ হাজারের অধিক ॥ পানিতে মিলেছে ডায়রিয়া জীবানু সিংড়ায় ট্রাকের ধাক্কায় দুই মাদ্রাসা শিক্ষক নিহত কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে সালিশি বৈঠকে সংঘর্ষ মেম্বার সহ আহত -৯ বিশ্ব বই দিবস আজ: যেভাবে এলো দিনটি কবি পিএম. জাহিদের মেথরের বেটি- ২ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে রিমা নামের এক নববধূর লাশ উদ্ধার ইফতার সামগ্রী বিতরণ করলেন “চিকনিকান্দী সেচ্ছাসেবক সংগঠন” কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হাত পা বাঁধা অবস্থায় কৃষকের লাশ উদ্ধার কবি “নূর জাহান” এর কবিতা “বাঁজিছে দামামা”।

সিংড়ার পাঁচ পাকিয়া গ্রামে ঘুর্নিঝড়ে ৩০ বাড়ি লন্ড ভন্ড

সিংড়ার পাঁচ পাকিয়া গ্রামে ঘুর্নিঝড়ে ৩০ বাড়ি লন্ড ভন্ড

নাটোর সিংড়া থেকে কবি হাবিবুর রহমান


নাটোরের সিংড়ায় মাত্র ৫ মিনিটের ঘুনিঝড়ে একই গ্রামের প্রায় ৩০টি বাড়ি লন্ড ভন্ড হয়েছে। উপজেলার ২ নং ডাহিয়া ইউনিয়নের লালুয়া পাঁচপাকিয়া গ্রামের মধ্য পাড়া,লালুয়া পাড়া ও মসজিদ পাড়ায়  মঙ্গলবার রাত ৮টায় এই ঘুর্নিঝড়ের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় ও প্রত্যক্ষ দর্শীরা জানান, মঙ্গলবার রাত ৮ টার সময় গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি নামে। প্রথমে কোন বাতাস ছিলনা। হঠাৎ প্রবল বেগে বাতাস উঠে। কিছু বুঝে উঠার আগেই ঘুর্নিঝড় শুরু হয়। গাছ পালা ভাঙ্গতে শুরু করে। ঘরের টিনের চালা উড়ে যায়। আমরা আচমকা দিশেহার হয়ে পড়ি। অল্পসময়ের এই ঝড়ে ৩০টি পরিবারের বাড়ি ঘর ও গাছ পালার ব্যাপক ক্ষতি হয়। এর মধ্যে ১৭ টি পরিবারের বাড়ি ঘরের আংশিক ক্ষতি হলেও ১৩টি পরিবারের ঘরের সর্ম্পুণ চালা একেবারেই উড়ে যাওয়ায় এই পরিবার গুলোর ক্ষতি হয়েছে সবচেয়ে বেশি।  এছাড়া এই ৩টি পাড়ার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া এই ঝড়ে খেজুর গাছ,আম গাছ,বেল গাছ সহ কাঠ জাতীয় গাছের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ ফিরোজ,ফারুক,সাজেদা ও আব্দুল রহিম সহ ১৩টি পরিবারের ঘরের চালা উড়ে যাওয়ায় তারা এখন খোলা আকাশের নীচে বসবাস করছে।
ওই গ্রামের প্রত্যক্ষদর্শী হাবিব বলেন,আমরা তখন কেরাম র্বোড খেলছিলাম। বুষ্ঠি নাই। মেঘের কোন গর্জনও নেই। হঠাৎ প্রবল বাতাস শুরু হয়। এর পরই শুরু হয় ঘুর্নিঝড়। মনে হচ্ছে আমরা বাতাসের পাকে ঘুরছি। মিনিট পাঁচেক পরই সব থেমে গেল। এর পরই পাড়ায় চিৎকার চেচা মেচি শুনতে পাই। গিয়ে দেখি অনেকের ঘরের চালা উড়ে গেছে। গাছ পালা ভেঙ্গে গেছে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ কামাল হোসেন বলেন, আমি সকালে ওই গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের বাড়িতে গিয়ে দেখি তাদের বাড়ি ঘরের অনেক ক্ষতি হয়েছে। বিশেষ করে যাদের ঘরের চালা উড়ে গেছে তাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যাদের পুনরায় চালা তোলার মত সামর্থ নেই। তাই এই অসহায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের জন্য প্রতিমন্ত্রী আলহাজ এড জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি মহোদয়  সহ সরকারী কর্মকর্তাদের দ্রুত সহযোগিতার আহবান জানাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Categories

Theme Created By ThemesWala.Com