Dhaka , Sunday, 21 April 2024
www.dainikchalonbilerkotha.com

ফরিদপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা দায়ের

চলনবিলের কথা ডেস্ক

 

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ফরিদপুরে মেহেদী হাসান মিন্টু (৫০) নামে এক ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় তাঁর বিরুদ্ধে দুদকের ফরিদপুরের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সংস্থাটির উপ-সহকারী পরিচালক খালিদ হোসাইন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

মেহেদী হাসান মিন্টু জেলা সদরের ৫ নম্বর ডিক্রিরচর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান এবং একই উপজেলার আইজউদ্দিন মাতুব্বরের ডাঙ্গী গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে।

মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ফরিদপুরের দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, ওই ইউপি চেয়ারম্যান স্থাবর ও অস্থাবর ১ কোটি ৭ লাখ ৪৮ হাজার ১৭২ টাকা জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদক এ মামলাটি দায়ের করে।

এজাহারে জানা গেছে, দুদকের সম্পদ বিবরণী নোটিশ জারির পরিপ্রেক্ষিতে ২০২১ সালের ৩০ নভেম্বর ফরিদপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সম্পদের হিসাব দাখিল করেছেন। সম্পদের হিসাবে এক কোটি চার লাখ ৮১ হাজার ৯১৭ টাকার সম্পদ অর্জনের প্রমাণ পাওয়া গেলেও ৭২ লাখ ৫৪ হাজার ৫৩৬ টাকার সম্পদের হিসাব মিলেছে অনুসন্ধানে।

অর্থাৎ তিনি ৩২ লাখ ২৭ হাজার ৩৮১ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপন করার চেষ্টা করেছেন। এ ছাড়া দুদকের অনুসন্ধানে স্থাবর ও অস্থাবরসহ এক কোটি সাত লাখ ৪৮ হাজার টাকা অবৈধ সম্পদের প্রমাণ মিলেছে।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

ফরিদপুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা দায়ের

আপডেটের সময় 04:39 pm, Monday, 19 February 2024

চলনবিলের কথা ডেস্ক

 

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ফরিদপুরে মেহেদী হাসান মিন্টু (৫০) নামে এক ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টায় তাঁর বিরুদ্ধে দুদকের ফরিদপুরের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সংস্থাটির উপ-সহকারী পরিচালক খালিদ হোসাইন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

মেহেদী হাসান মিন্টু জেলা সদরের ৫ নম্বর ডিক্রিরচর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান এবং একই উপজেলার আইজউদ্দিন মাতুব্বরের ডাঙ্গী গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে।

মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ফরিদপুরের দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, ওই ইউপি চেয়ারম্যান স্থাবর ও অস্থাবর ১ কোটি ৭ লাখ ৪৮ হাজার ১৭২ টাকা জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদক এ মামলাটি দায়ের করে।

এজাহারে জানা গেছে, দুদকের সম্পদ বিবরণী নোটিশ জারির পরিপ্রেক্ষিতে ২০২১ সালের ৩০ নভেম্বর ফরিদপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সম্পদের হিসাব দাখিল করেছেন। সম্পদের হিসাবে এক কোটি চার লাখ ৮১ হাজার ৯১৭ টাকার সম্পদ অর্জনের প্রমাণ পাওয়া গেলেও ৭২ লাখ ৫৪ হাজার ৫৩৬ টাকার সম্পদের হিসাব মিলেছে অনুসন্ধানে।

অর্থাৎ তিনি ৩২ লাখ ২৭ হাজার ৩৮১ টাকার সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপন করার চেষ্টা করেছেন। এ ছাড়া দুদকের অনুসন্ধানে স্থাবর ও অস্থাবরসহ এক কোটি সাত লাখ ৪৮ হাজার টাকা অবৈধ সম্পদের প্রমাণ মিলেছে।